প্রচ্ছদ

সিলেট আওয়ামী লীগে সাজ সাজ রব

07 October 2019, 14:31

শুভ প্রতিদিন

প্রতিদিন ডেস্ক:

বছরের পর বছর গেছে, সম্মেলন হয়নি। এমনকি দীর্ঘ আট বছরেও নিজেদের আওতাধীন সকল উপজেলা ও ওয়ার্ড শাখার সম্মেলন করে কমিটি দিতে পারেনি সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ। অবশেষে কেন্দ্রের কঠোর বার্তা পেয়ে গা-ঝাড়া দিয়ে ওঠেছেন সিলেট আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল নেতারা। সম্মেলন নিয়ে শুরু হয়েছে ব্যাপক তোড়জোড়। জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে, মহানগর শাখাও তারিখ নির্ধারণ করতে বৈঠকে বসছে। এছাড়া উভয় শাখার আওতাধীন উপজেলা ও ওয়ার্ডগুলোতেও সম্মেলনের সিদ্ধান্ত হয়েছে। প্রতীক্ষিত সম্মেলন ঘিরে সিলেট আওয়ামী লীগে এখন সাজ সাজ রব পড়েছে।

জানা গেছে, সিলেট আওয়ামী লীগে সম্মেলনের মাধ্যমে কমিটি হয়েছিল ২০০৫ সালে। এরপর ২০১১ সালে সম্মেলন ছাড়াই গঠিত হয় কমিটি। তিন বছর মেয়াদী সে কমিটি ইতিমধ্যে পার করে দিয়েছে আট বছর। এ দীর্ঘ সময়ে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগ নিজেদের আওতাধীন ১৩টি উপজেলার মধ্যে মাত্র ৬টিতে আংশিক কমিটি করতে পেরেছে। আর মহানগর আওয়ামী লীগ ২৭টি ওয়ার্ডের মধ্যে কমিটি করেছে ২১টিতে। এতো সময় পেয়েও সম্মেলন কিংবা কমিটি করতে না পারায় সিলেট আওয়ামী লীগ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ও যুগ্ম সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ। সম্প্রতি সিলেটে এসে তাঁরা আগামী ১০ ডিসেম্বরের মধ্যে সকল শাখার সম্মেলন করতে কঠোর নির্দেশ দিয়ে যান দায়িত্বশীলদের। এরপরই নড়েচড়ে বসেন সিলেট আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা।

জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জরুরি কার্যনির্বাহী বৈঠকে বসে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগ। সেখানে আগামী ৫ ডিসেম্বর জেলার সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়। এছাড়া ৭টি উপজেলায় সম্মেলনের তারিখ চূড়ান্ত ও অপর ৬টিতে কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার সিদ্ধান্তও হয় বৈঠকে।

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক জগলু চৌধুরী সিলেটভিউকে জানান, আগামী ৫ ডিসেম্বর জেলার সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। জেলার সম্মেলনের আগে আগামী ৩১ অক্টোবর বালাগঞ্জ উপজেলা, ১ নভেম্বর সিলেট সদর উপজেলা, ৫ নভেম্বর কোম্পানীগঞ্জ, ৭ নভেম্বর বিয়ানীবাজার, ৯ নভেম্বর দক্ষিণ সুরমা, ১০ নভেম্বর কানাইঘাট ও ১৪ নভেম্বর গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। বাকি ৬টি উপজেলায় নভেম্বরের মধ্যে কমিটি পূর্ণাঙ্গ করা হবে।

এদিকে, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগও ১০ ডিসেম্বরের মধ্যেই সম্মেলন শেষ করতে চায়। এর আগে চলতি অক্টোবরেই বাকি থাকা ৬টি ওয়ার্ডে সম্মেলন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা।

সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ সিলেটভিউকে বলেন, ‘অক্টোবরেই আমরা ওয়ার্ডগুলোর সম্মেলন শেষ করবো। পূজা শেষেই কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠক ডেকে কেন্দ্রের সাথে কথা বলে মহানগরের সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হবে।’