প্রচ্ছদ

বানিয়াচংয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অভিযোগ টাকা আত্মসাতের

08 October 2019, 16:53

শুভ প্রতিদিন

প্রতিদিন ডেস্ক:
হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার ৬ নং কাগাপাশা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এরশাদ আলীর বিরুদ্ধে সরকারী খেয়াঘাট অবৈধভাবে ইজারা দিয়ে ৮ লক্ষাধিক টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে।

সম্প্রতি গ্রামবাসী বানিয়াচংয়ের ইউএনও বরাবর তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। সরকারী দপ্তর থেকে ইজারার টাকা ফেরৎ ও টোল আদায় বন্ধ করার তাগাদা দিলেও এরশাদ আলী নিয়ম ভঙ্গ করে টোল আদায় অব্যাহত রেখেছেন বলে যায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলা সদর থেকে কাদিরগঞ্জ বাজার সড়কের কুশিয়ারা নদী পাড়াপাড়ে খেয়াঘাটে ২০১৬ সাল থেকে বিধি বহির্ভূতভাবে ইজারা দিয়ে ৮ লক্ষ ২৩ হাজার টাকা আদায় করেছেন এরশাদ আলী। কিন্তু ওই টাকা সরকারি কোষাগারে জমা করেননি তিনি। এব্যাপারে হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে চিঠির মাধ্যমে টাকা জমা দেয়ার তাগিদ দেয়া হয়েছে। কিন্তু প্রভাবশালী চেয়ারম্যান তোয়াক্কা না করে ইজারার টাকা ফেরৎ না দিয়ে টোল আদায় অব্যাহত রেখেছেন।

বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মামুন খন্দকার সিলেটভিউকে জানান, জেলা প্রশাসক মহোয়ের কাছ থেকে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি পেয়ে চেয়ারম্যান এরশাদ আলীকে অবগত করেছি। তিনি একটি লিখিত জবাব দিয়েছেন। তার লিখিত বক্তব্যটি জেলা প্রশাসক বরাবরে প্রেরন করেছি। এখন জেলা প্রশাসক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন।

যোগাযোগ করা হলে এরশাদ আলী সিলেটভিউকে জানান, আমি এর সাথে জড়িত নই। খেয়াঘাটটি যুগ যুগ ধরে এলাকাবাসী ইজারা দিয়ে আসছেন। আমি জানিনা কে বা কারা এই অভিযোগ দিয়েছেন। তবে ইউএনও মহোদয়ের কাছ থেকে চিঠি পেয়ে আমি একটি লিখিত জবাব দিয়েছি। তাছাড়া ইজারার টাকা দিয়ে এলাকার মসজিদ, মাদ্রাসার উন্নয়নসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ করা হয়।